রহস্যময় মানুষবিহীন জাহাজটি দুদিন আগেই ছেড়েছিল চট্টগ্রাম বন্দর

131

চট্টগ্রামে জার লজিস্টিকসের কর্মকর্তা জিন্নাত আলী বলেন, ‘জাহাজটি দুইদিন আগে চট্টগ্রাম বন্দর ছেড়ে চলে গিয়েছিল। বন্দর ছেড়ে চলে যাওয়ার পর কী হয়েছিল সেটা আমরা বলতে পারছি না।’

চট্টগ্রাম বন্দরে জাহাজগুলোর যে তালিকা বন্দর কর্তৃপক্ষ কাছে থাকে টা থেকে দেখা যায় এই নৌযানটি এ বছরেই একাধিকবার বাংলাদেশে এসেছে।

৮ সেপ্টেম্বরের একটি তালিকাতেও জাহাজটির কথা উল্লেখ আছে , যেখানে বলা হয় বার্জটি মালয়েশিয়ার একটি বন্দর থেকে ৯ হাজার টনের বেশি পাথর বহন করে আনে।

চট্টগ্রাম বন্দরের তালিকা থেকে জানা যায়, জার ওয়ার্ল্ড লজিস্টিকস নামের একটি স্থানীয় এজেন্ট এই জাহাজটি ভাড়া করে এনেছিল।

প্রতিষ্ঠানটির একজন কর্মকর্তা স্বীকার করেছেন যে এই জাহাজটি তারা ভাড়া করেছিলেন। কিন্তু বার্জটি কীভাবে সেন্টমার্টিন দ্বীপে গিয়ে ভিড়লো এনিয়ে তারা কিছুই বলতে পারছেন না।

মালয়েশিয়া থেকে নির্মাণকাজের জন্য পাথর বহন করে জাহাজটি চট্টগ্রামের কুতুবদিয়ায় গিয়েছিল বলে জানায় প্রতিষ্ঠানটি। মি. আলী বলছেন, দুইদিন আগে বার্জটি নিয়ে টাগবোট চট্টগ্রাম বন্দর ছেড়ে যায় ক্যাপ্টেন এবং ক্রু-সহ ।

চট্টগ্রাম বন্দরের যে তালিকা আছে টা থেকে দেখা যায়, গত জুন মাসেও বার্জটিকে কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় নোঙর করে থাকতে দেখা গিয়েছিল